আমার অকাল্পনিক কাহিনী।

আমার অকাল্পনিক কাহিনী।
আল্লাহর রহমতে অনেক সুখের মধ্য দিয়ে লেখা পড়া করতেছিলাম তার মধ্যে পারিবারিক চাঁপও ছিল। কিন্তু যখন কুরআন হেফজ করে বাহির হলাম।

তখন দেখলাম আমি যদি শুধু লেখা পড়া নিয়ে পড়ে থাকি আমার লেখা পড়ার খরচ কে চালাবে আর পরিবারের খরচ কে চালাবে। তা চিন্তা করে টিউশনি করতে লাগলাম আর কিছুদিন পরে আমাদের বাড়ির পাশের একটা মসজিদের পাঁচ ওয়াক্তের ইমাম হিসাবে দায়িত্ব পালন করছিলাম । তখন লেখা পড়ার খরচ চালানোর মত পরিবারের কোন পরিস্থিতি ছিলনা।

তারপরেও আল্লাহর রহমতে দাখিল পরিক্ষা দিয়ে আলিমে এডমিশন নিলাম। আলিমে ভর্তি হওয়ার পর সিদ্ধান্ত নিলাম চাকরি ছেড়ে দেব। ভাল করে লেখাপড়া করব। কিন্তু ভাগ্যের কি পরিহাস। চাকরি তো ছাড়লাম আমার দেশ-ও ছাড়তে হইছে। আলিমে ভর্তি হওয়ার দুই একমাস যেতে না যেতেই তখন ভিসা হয়ে গেল।

আমি জানতাম না যে কখনো আমার বর্তমান পরিস্থিতিতে আসতে হবে। যেমন ছোট্ট থেকে বাবা মা আর নিজে আসা করেছিলাম যে একজন বড় মাওলানা হয়ে মানুষের সামনে কুরআনের বাণী রাসূল (সঃ) এর হাদীসের বাণী মনুষকে শুনাবো। এবং মানুষকে আল্লাহর পথে আহ্বান করব। কিন্তু এখন এমন পরিস্থিতিতে চলে আসলাম তা মনে হয় আর হবে না। কিন্তু এখনো সেই ফরিয়াদ খোদার দরবারে বারবার করি যে। আল্লাহ তুমি আমাকে কুরআন হাদীসের এবং দ্বীনের এলম দান কর। এবং একজন রাসূলের গোলাম ও তুমি খোদার খাঁটি বান্দা হয়ে দ্বীনের খেদমত করতে পারি। হয়ত আল্লাহ আমার এই ফরিয়াদ কবুল করে মৃত্যুর আগে হলেও দেখাবেন।

About H.M.Abu Sufean

Leave a Reply

Your email address will not be published.